টেক বাংলা আইটি https://www.techbanglait.com/2021/08/how-to-identify-good-fish.html

ভালো মাছ চেনার উপায়

টাটকা মাছ চেনার উপায় — সকলের কাছে একঘেয়েমি খাবারগুলো খেতে ভালো নাও লাগতে পারে। স্বাদ পরিবর্তন করতে বর্তমানে হাটে বাজারে মাছ ক্রেতারা জমাচ্ছেন ভিড়। তবে হ্যাঁ বাজারে মাছ ক্রয় করার সময় ঠকে গেলে সেটা মোটেও আপনার কাছে ভালো লাগবে না। বর্তমান সময়ে মাছ বিক্রেতারা পঁচা মাছ ক্রেতাদের ব্যাগে গুছিয়ে দেন। কোন মাছ তাজা সেটা না চেনার পারার কারণে ক্রেতাগণ পঁচা, ফরমালিন যুক্ত মাছ ক্রয় করে বাড়ি ফিরেন।

তবে হ্যাঁ মাছে যতই রঙ এবং ফরমালিন দেয়া হোক না কেন, টাটকা এবং ফরমালিন মুক্ত মাছ চেনার জন্য আছে দারুণ কিছু কৌশল। যে সকল বিষয় জানা থাকলে আপনি খুবই সহজেই বাজার থেকে তাজা মাছ ক্রয় করে বাড়িতে আনতে পারবেন। এতে করে আপনাকে আর বাজার থেকে মাছ কিনে ঠকে আসার আর কোনো রকম ভয় থাকবেনা। তো চলুন তাহলে ভালো মাছ চেনার উপায় কিংবা তাজা মাছ চেনার উপায় সম্পর্কে জেনে নেইঃ 

ভালো মাছ চেনার উপায়

ফরমালিন যুক্ত মাছ চেনার উপায়

ফরমালিন যুক্ত মাছের মাংস পঁচে যায়না ঠিকই, কিন্তু মাছের চোখের জীবন্ত ভাব নষ্ট হয়ে যাওয়া কিন্ত ঠেকানো সম্ভব হয়না। টাটকা মাছের চোখ দেখতে সবসময় স্বচ্ছ পরিস্কার হবে। টাটকা মাছের চোখ একদম ঝকঝকে হবে, দেখলেই মনে হবে যে মাছটি জীবন্ত। সময়ের সাথে সাথে মাছের এই চোখ ঘোলাটে অর্থাৎ মৃত হয়ে আসে। যতবেশি সময় যায় চোখ তত দ্রুত নিষ্প্রাণ হয়। তাই আপনি মাছের চোখ দেখলেই চিনতে পারবেন কোনটি তাজা মাছ। 

তাজা মাছ চেনার উপায়

তাজা মাছ দেখতে হবে বাউন্সি। টাটকা তাজা মাছ কখনোই শক্ত হবেনা, আবার তাজা মাছ নরমও কিন্ত হবেনা। যদি আপনি মাছের উপরে আঙ্গুল দিয়ে চাপ দেন তাহলে যদি দেখতে পান যে মাছটি একদম শক্ত আছে, তাহলে আপনি বুঝে নিবেন যে সেই মাছটি ফ্রিজে রাখা হয়েছিল। আর যদি মাছের পেটে আঙ্গুল দিয়ে চাপ দিলে পেট নরম হয়ে যায় ভেতরে, তাহলে আপনি বুঝে নিবেন যে মাছটি তাজা অর্থাৎ মাছটি টাটকা না। তাজা মাছ বা টাটকা মাছের পেটে যখন আপনি আঙ্গুল দিয়ে চাপ দিবেন তখন মাছের পেট দেবে যাবে ঠিকই, কিন্তু আবার আপনি যখন আঙ্গুল সরে নিবেন তখন জায়গাটা আবার ঠিক হয়ে যাবে। 

কানকো দেখে ভালো মাছ চেনার উপায়

মাছের কানকো দেখে টাটকা মাছ চেনার জন্য ভালো একটা পদ্ধতি। যদিওবা মাছের কানকোতে বর্তমানে দোকানিরা রং ব্যবহার করেন। তাই আপনার উচিত আপনি শুধুমাত্র মাছের কানকো দেখেই মাছ ক্রয় করবেন না। মনে রাখবেন টাটকা মাছের কান দেখতে হবে তাজা রক্তের কালারের এবং মাছটি পিচ্ছিল ও মাছের গায়ে স্লাইমি ভাব থাকবে। 

টাটকা মাছ কিনতে মাছের শরীর দেখুন

মাছের চোখ এবং কানকো দেখার পরে আপনি মাছের শরীর ভালোভাবে দেখে নিন। মাছের শরীর দেখতে কী উজ্জ্বল রূপালি রঙের এবং চকচকে করছে? আপনি লক্ষ্য করে দেখবেন সুপারশপের মাছ গুলো দেখতে চকচকে রূপালি কালারের পরিবর্তে হলদে, লালচে এবং অন্যান্য রংয়ের আভা দেখা যায় মাছের শরীরে। যদি আপনি এই রকম দেখতে পারেন তাহলে অবশ্যই আপনি বুঝবেন যে মাছটি অনেকদিনের পুরোনো। তাজা মাছ দেখতে চকচক করবে, সময় যাওয়ার সাথে সাথে মাছের চকচকে ভাব একদম ম্লান হয়ে যাবে সেই মাছে যতই ফরমালিন ব্যবহার করা হোক না কেন। 

মাছের গন্ধ শুকে ভালো মাছ চেনার উপায়

তাজা বা ভালো মাছের গন্ধ হবে পানির মতো আর যদি মাছটি হয় সামুদ্রিক তাহলে মাছের গন্ধ হবে সমুদ্রের মতো। আপনি মাছের গন্ধ শসার গন্ধের সাথেও মিল খুঁজে পেতে পারেন। আবার যদি কোনো মাছ থেকে বাজে দুর্গন্ধ চলে আছে, তবে সেই মাছটি নিঃসন্দেহে তাজা বা টাটকা মাছ নয়। কিন্ত মনে রাখবেন চিংড়ি মাছের ক্ষেত্রে কিন্তু সম্পূর্ণ আলাদা পদ্ধতি। চিংড়ি মাছের খোসা যদি শক্ত এবং ক্রিসপি হয়ে থাকে তবে চিংড়ি মাছটি টাটকা বা তাজা মাছ। আর যদি চিংড়ি মাছের খোসা নরম এবং নেতিয়ে পড়ার মতো হয়ে থাকে তাহলে মনে করবেন চিংড়ি মাছটি ভালো নয়। 

অথবা যদি আপনি সুপারশপে আগে থেকেই কাটা মাছ কিংবা ফিশ ফিলে ক্রয় করতে চান? তাহলে আপনি সেই কেটে রাখা মাছের রঙ লক্ষ্য করুন। টাটকা বা তাজা মাছের মাংস হবে উজ্জ্বল কালারের। রঙ যতই বিবর্ণ মাছটি তত পচা। আপনি কি বাজারে কাটা ভাগা দেয়া মাছ কিনতে চান? তাহলে ভালোভাবে মাছের দিকে খেয়াল করবেন যে মাছের চারপাঁশে কোনো সাদা অথবা ফ্যাকাশে রংয়ের পানি আছে কি-না। যদি আপনি এরকম দেখতে পান, তাহলে বুঝে নিবেন মাছটি ভালো না। কেননা টাটকা বা ভালো মাছের চারপাশে থাকবে স্বচ্ছ পানি। 

জিয়ল মাছ কিনতে যা জানা প্রয়োজন

মাগুর মাছ, শিং মাছ, শোল মাছ ইত্যাদি ক্রয় করতে সাবধান থাকুন। বর্তমান সময়ে দোকানিরা মৃত জিয়ল মাছগুলোকে টাটকা না তাজা মাছ বলে ক্রেতাদের হাতে ধরিয়ে দেয়। জিয়ল মাছগুলো  যদি ট্রের মাঝে ছটফট করতে থাকে তাহলে আপনার উচিত সেই মাছটি কিনুন। পূর্বে থেকেই বাহির করে ট্রেতে সাজিয়ে রাখা মাছ কেনা উচিত না।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া