Tech Bangla IT https://www.techbanglait.com/2021/04/realme-8-pro-specifications.html

বাজার কাপাচ্ছে রিয়েলমি ৮ প্রো ১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ও ডিজাইনের ফোনটি

পছন্দের ফোনটি কেনার আগে ক্যামেরা, ডিজাইন, দ্রুত এবং নিরাপদ চার্জিং, পারফরমেন্সের ওপর বেশি জোর দিয়ে থাকেন তরুণ ব্যবহারকারীরা। আর ঠিক এই বিষয়গুলোকে প্রাধান্য দিয়েই রিয়েলমি দেশের তরুণদের জন্য তাদের নতুন ফ্ল্যাগশিপ ‘৮ প্রো’ স্মার্টফোন বাজারে নিয়ে এসেছে। রিয়েলমি ৮ প্রো স্মার্টফোনটিতে রয়েছে ১০৮ মেগাপিক্সেলের ইনিফিনিট ক্ল্যারিটি আল্ট্রা কোয়াড ক্যামেরা।

যা স্মার্টফোন ইন্ডাস্ট্রির সর্বোচ্চ পিক্সেলের ক্যামেরাযুক্ত স্মার্টফোন বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।স্মার্টফোনটির প্রাইমারি ক্যামেরায় ১০৮ মেগাপিক্সেলের সঙ্গে রয়েছে থার্ড জেনারেশন আইএসওসেল এইচএম২ সেন্সর, ১/১.৫২ ইঞ্চির এক্সট্রা লার্জ সেন্সর এবং ১২০০০x৯০০০ সর্বোচ্চ রেজ্যুলেশন। আইএসওসেল প্লাস পিক্সেল আইসোলেশন প্রযুক্তির সাহায্যে এইচএম২ অপটিক্স লস এবং ক্রস কালারের মাত্রা কমিয়ে আনে যার ফলে কালার ফিডেলিটি আরো সমৃদ্ধ হয় এবং ১৫ শতাংশ আইএসও বাড়ে।

স্মার্ট আইএসও প্রযুক্তির কল্যাণে একদিকে রিয়েলমি ৮ প্রো দিচ্ছে পরিবেশের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে সবচেয়ে স্বয়ংক্রিয়ভাবে সেরা আইএসও বেছে নেওয়ার সুবিধা, সেই সাথে পর্যাপ্ত আলো না থাকলেও ব্যবহারকারীরা পাচ্ছেন রিয়েলমি ৮ প্রো’র সাহায্যে স্পষ্ট এবং উজ্জ্বল ছবি তোলার সুবিধা। এছাড়াও, এইচএম২ সেন্সর নাইন-ইন-ওয়ান পিক্সেল বিনিং প্রযুক্তি সাপোর্ট করে থাকে, যার মাধ্যমে মৃদু আলোতে তোলা ছবিও বেশ স্পষ্টভাবে ক্যামেরাবন্দি করা যায়।

রিয়েলমি ৮ প্রো স্মার্টফোনের ১০৮ মেগাপিক্সেল মেইন সেন্সর বাদেও কোয়াড ক্যামেরা সেটআপে আছে ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল লেন্স, ২ মেগাপিক্সেল ব্ল্যাক এবং হোয়াইট পোর্ট্রেট লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স। যা যেকোনো ব্যবহারকারীকর আরও বেশি আকর্ষণীয় করে তোলে। এর আলট্রা ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল লেন্সের এফ/২.২৫ অ্যাপারচার, ৮ মেগাপিক্সেল রেজ্যুলুশন এবং ১১৯ ডিগ্রি ফিল্ড অব ভিউ’র কল্যাণে এখন অল্প দূরত্ব থেকেই ফ্রেমে জায়গা হবে আশেপাশের সব কিছু।

আরও পড়ুনঃ কম দামে মধ্যে সেরা ৫টি স্মার্টফোন

অন্যদিকে ক্ষুদ্রাকৃতির যেকোনো বস্তুর ছবিও স্পষ্টভাবে ফ্রেমবন্দী করার জন্য রিয়েলমি ৮ প্রো’তে রয়েছে আল্ট্রা ম্যাক্রো লেন্স। অভিনব কালার ফিল্টার সিস্টেমের সাহায্যের স্মার্টফোনটির পোর্ট্রেট লেন্স অন্যান্য সেটের তুলনায় অনেক বেশি রঙ ফুটিয়ে তুলতে পারে। ফলে মূল লেন্সের জন্য আলো এবং রঙের সংমিশ্রণ আরও অনেক বেশি উন্নত হয়, যা রিয়েলমি ৮ প্রো’তে তোলা যেকোনো পোর্ট্রেটকে জীবন্ত করে তোলে।

এমন সকল চমৎকার ফিচার থাকার পরেও রিয়েলমি ৮ প্রো’র ক্যামেরার সাথে ইউজাররা পাচ্ছেন নতুন সুপার নাইটস্কেপ, ৩এক্স ইন-সেন্সর জুম, এটি সর্বপ্রথম বিশ্বের স্টারি টাইম-ল্যাপস ভিডিও এবং টিল্ট-শিফট মোড, যার সমন্বয় রিয়েলমি ৮ প্রো-কে বাজারে অতুলনীয় করে তুলেছে। এই ফোনটি শুধুমাত্র ০-৫০ শতাংশ চার্জ হবে ১৭ মিনিটে।

রিয়েলমি ৮ প্রো’তে রয়েছে ৫০ ওয়াটের সুপার ডার্ট চার্জার। এ কারণেই মাত্র ১৭ মিনিটে এর ৪৫০০ মেগাঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি ০-৫০% চার্জ হয়ে যাবে। অত্যাধুনিক টেকনোলজির কারণে দ্রুত চার্জ হলেও রিয়েলমি ৮ প্রো চার্জের সময় মাত্রাতিরিক্ত গরম হয় না। পাশাপাশি, রিয়েলমি ৮ প্রো এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যাতে প্রয়োজনের অতিরিক্ত কোনো কারণে চার্জ অপচয় না হয়। 

তাই এই স্মার্টফোন যেকোনো ইউজারকে দেবে দিনভর প্রয়োজনীয় সকল কাজ করার নিশ্চয়তা। শুধুমাত্র এই ফোনের ৫% চার্জ থাকলেও রিয়েলমি ৮ প্রো দিবে ৩২ ঘণ্টা পর্যন্ত স্ট্যান্ডবাই সুবিধা। রিয়েলমি ৮ প্রো স্মার্টফোনের সাথে ব্যবহারকারীরা পেয়ে জাচ্ছেন একটি ৬৫ ওয়াটের সুপার ডার্ট চার্জিং অ্যাডাপ্টার। যার সাহায্যে অন্য সকল স্মার্ট ডিভাইস দ্রুত এবং নিরাপদে চার্জ করা যাবে।

বাংলাদেশে এই ফোনটি রিয়েলমি ৮ প্রো পাওয়া যাচ্ছে ৮ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি রমে দুটি কালারেই খুবই সুন্দর রঙে। ফোনটির বর্তমান বাজার প্রাইস মাত্র ২৭,৯৯০ টাকা। এই ফোনর ওজন মাত্র ১৭৬ গ্রাম।

ক্যামেরা ও ব্যাটারি ব্যাকআপের পাশাপাশি বর্তমান সময়ে তরুণ ও তরুণীদের চাই আরও আকর্ষণীয় ডিজাইনের বেশি স্টাইলিশ এবং স্লিম একটি ফোন। রিয়েলমি ৮ প্রো এজি ক্রিস্টাল প্রসেসিংয়ের মাধ্যমে এমনভাবে ডিজাইন করা হয়েছে যে যা ফোনটির ব্যাকশেলে আকর্ষণীয় ভাবে তুলেছে ক্রিস্টাল ইনফিনিটি ডিজাইন। ফোনটি দেখতে অনেক বেশি সুন্দর এই স্মার্টফোনটি ‘স্লিম অ্যান্ড লাইট’ গড়ণকেই বেছে নিয়েছে। স্মার্টফোনটি ১৭৬ গ্রাম ওজন ও ৮.১ মিলিমিটার পুরুত্বের বেশ আকর্ষণীয়।

এতে রয়েছে ৬ দশমিক ৪ ইঞ্চি সুপার অ্যামোলেড স্ক্রিনের ফুল ডিসপ্লে, যা যেকোনো ছবি বা ভিডিওকে প্রাণবন্তভাবে ফুটিয়ে তুলতে সাহায্য করে। এই ডিসপ্লে খুবই স্মুথ কারণ এতে রয়েছে ১৮০ হার্টজ টাচ স্ম্যাপ্লিং রেট। এতকিছুর সঙ্গে থাকছে অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক একদম নতুন রিয়েলমি ইউআই ২.০। ইউআইটি আগের চাইতে আরও বেশি দ্রুত। ব্যবহারকারীদের সুবিধার্থে এই অপারেটিং সিস্টেমটিতে স্বাচ্ছন্দ্যময় ও আরামদায়ক স্মার্টফোন ব্যবহারের দিকেই জোর দেওয়া হয়েছে। ব্যবহারকারীদের সৃজনশীলতা, সামাজিক যোগাযোগ এবং উৎপাদনশীলতা – এই তিনটি বিষয়কে মূখ্য করে রিয়েলমি তাদের ইউআই ২.০ তৈরি করেছে। 

রিয়েলমি ইউআই ২.০-তে ব্যবহারকারীরা ১০০টিরও বেশি কাস্টমাইজেশনের সুবিধা পাবেন। এতকিছুর পাশাপাশি রিয়েলমি ৮ প্রোতে রয়েছে দারুণ পারফরমেন্সের জন্য স্ন্যাপড্রাগন ৭২০জি গেমিং প্রসেসর এবং ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। রিয়েলমি ৮ প্রো রিয়েলমি ব্র্যান্ডশপ থেকে প্রি-অর্ডার করতে পারবেন ৩ থেকে ৯ এপ্রিল। প্রি-অর্ডারে পাওয়া যাবে লিমিটেড এডিশন গিফট বক্স, ব্যাগ, ৬ মাসের ফ্রি স্ক্রিন রিপ্লেসমেন্ট ওয়ারেন্টি।

আরও পড়ুনঃ Realme Narzo 30A | Realme Narzo 30A Full Specifications

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?