টেক বাংলা আইটি https://www.techbanglait.com/2021/09/methir-upokarita-bangla.html

মেথির উপকারিতা | মেথির উপকারিতা চুলের জন্য

মেথির উপকারিতা — মেথি নাম শুনলেই মনে পড়ে যায় পাচ ফোড়নের কথা। পাচ ফোড়নের এক বিশেষ উপাদান মেথি। সোনালী রঙের ছোট ছোট এই দানা অসংখ্য গুণে পরিপূর্ণ। মেথিতে ফ্যাট, ফাইবার, ক্যালরি, ম্যাগনেসিয়াম, লোহা, ম্যাংগানিজ বিদ্যমান। মেথির উপকারিতার কথা যদি বলতেই হয় তাহলে আমাদের স্বাস্থ্য ও রূপচর্চায় মেথি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। চলুন, এক নজরে দেখে আসি মেথির সকল উপকারিতা। 

স্বাস্থ্যের জন্য মেথির উপকারিতা

মেথির উপকারিতা

হার্ট সুস্থ রাখে

আমরা যখন ঘুমাতে যাই তখন আমাদের সকলের হাতেই একটা জিনিস থাকে। সেটি হলো মোবাইল। আপনি আপনার মোবাইলটি সাইডে রেখে এক গ্লাস পানি নিবেন ও পানিতে কিছুটা মেথির দানা ভিজিয়ে নিবেন। ভিজানোর সাথে সাথে খেয়ে ফেলবেন না আবার। ভিজানোর পর ঘুমিয়ে যাবেন।পরেরদিন সকালে যখন ঘুম থেকে উঠবেন তখন সবার প্রথমে মেথির পানি খাবেন। দেখবেন শরীরটা ভালো লাগছে। সকাল সকাল খালি পেটে মেথির পানি খেলে বুকের জ্বালাপোড়া সহ হার্টের অন্যান্য সকল সমস্যা অনেকক্ষাণি দূর হয়ে যায়। এতে আপনার ডাক্তারের এপয়েনমেন্ট বুক করতে হবে না, শুধু পাশের মুদি দোকান থেকে মেথি বুক করলেই চলবে।

হজম ক্ষমতা বৃদ্ধি করে

ওইযে বলেছিলাম না মেথিতে ফাইবার রয়েছে! কিন্তু ভেবে দেখেছেন কি এই ফাইবারের কাজ কি? আচ্ছা আমিই বলি। মেথিতে থাকা এই ফাইবারই আপনার আমার সকলেরই হজম ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। 

ওজন কমায়

আপনি যদি ওজন আধিক্যের সমস্যায় ভুগে থাকেন? তাহলে মেথি আপনার জন্যই। মেথিতে Galactomamnan নামক এক ফাইবার থাকে। এটি আমাদের শরীরের ওজন কমাতে সাহায্য করে। 

বাতের ব্যথা কমায়

সাধারণত বয়স্কদের বাতের সমস্যা দেখা দেয়। কিন্তু এখনকার এই যুগে ছোট- বড় অনেকের মাঝেই এই সমস্যা দেখা যায়। যাদের এই সমস্যা রয়েছে তারাই বুঝতে পারে বাতের ব্যথা কতটা কষ্টকর। তবে মেথি তো রয়েছেই। মেথি খেলে বাতের ব্যথা অনেকটাই কমে যায়।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ

মেথিতে পটাশিয়াম ও ফাইবার রয়েছে। এটি আমাদের শরীররের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে।

ক্যান্সার

যখন শুনতে পাই কেউ ক্যান্সার এ আক্রান্ত হয়েছে তখন চারপাশ কেমন যেনো নীরব হয়ে যায়। আজকাল ছোট বড় অনেকেরই ক্যান্সার হয়ে থাকে। তবে মেথি খেলে ক্যান্সার এর আশংকা অনেকটাই কমে যায়। 

রুপচর্চা মেথির উপকারিতা

খুশকি কমায়

আমাদের নিত্যদিনের এক সমস্যা হয়ে দাড়িয়ে লছে খুশকি। কোথাও বেড়াতে গেলে কেউ যখন বলে তোমার চুলে ও কাধে সাদা সাদা এগুলো কি তখন এক অপ্রীতিকর পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হয়। কিন্তু এখন থেকে আপনাদের এমন পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হবে না। কারণ মেথি তো আছেই। মেথি আমাদের চুলের খুশকি সূর করে ও চুলের গোড়া মজবুত করে।

ব্যবহারের নিয়ম

একটি বাটিতে পরিমাণ মতো মেথির গুড়ো নিবেন। পানি ও লেবুর রস মেশাবেন। এতে একটি পেস্ট তৈরি হবে। এরপর মাথার সম্পূর্ণ অংশে পেস্টটি লাগিয়ে ১০-১৫ মিনিট অপেক্ষা করবেন। তারপর সম্পূর্ণ মাথা ধুয়ে ফেলবেন। এভাবেই কিছুদিন মেথি লাগান। দেখবেন মাথা থেকে খুশকি একেবারেই দূর হয়ে গেছে। 

চুল পড়া কমায় | মেথির উপকারিতা চুলের জন্য

যখনই মাথায় চিড়ুনি লাগাই এক গোছা চুল বেরিয়ে আসে। এই সমস্যা এড়াতে রয়েছে মেথি। মেথিতে ভিটামিন সি ও ভিটামিন বি এর উপস্থিতি রয়েছে। এটি আমাদের চুল পড়া কমায়। 

ব্যবহারের নিয়ম

একটি পাত্রে মেথির গুড়ো নিন। কিছু পরিমাণ পানি মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এরপর পেস্টটি সম্পূর্ণ মাথায় লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এভাবে সপ্তাহে একদিন করে কয়েক সপ্তাহ লাগান। দেখবেন আপনার চুল পড়া কমে যাবে।

ব্রণ দূর করে

আমাদের মুখে সচরাচর ব্রণ দেখা যায়। আয়নার সামনে ব্রণ দেখলেই মুখে এক বিরক্তির ছাপ চলে আসে। কিন্তু মেথি চায় আপনার বিরক্তি কমিয়ে আনতে। অর্থাৎ, আপনি যদি টানা কয়েকদিন মেথি লাগান তাহলে আপনার ব্রণ দূর হয়ে যাবে। 

ব্যবহারের নিয়ম

একটি পাত্রে পরিমাণ মতো পানি নিন। পাত্রটি চুলায় বসান। পানিতে মেথির দানা ছেড়ে দিন। চুলায় ১৫-২০ মিনিটের মতো ফুটিয়ে নিন। পানি কিছুটা ঠান্ডা হলে তুলা দিয়ে মেথির দানা গুলো মুখে লাগিয়ে নিন। এভাবে টানা কয়েকদিন লাগালে দেখতে পারবেন আপনার মুখ থেকে ব্রণ উঠে গেছে। এভাবেই, মেথি আমাদের জীবনযাপনকে আরো সুন্দর করে তুলেন। আমি কিন্তু মেথি ব্যবহার করছি। আপনি করছেন তো?

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া